নারায়ণগঞ্জ ফেরতদের কোয়ারেন্টিনে নিতে গিয়ে সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত ৫

নারায়ণগঞ্জ জেলা থেকে ট্রলারে আসা লোকজনকে পিরোজপুরে হোম কোয়ারেন্টিনে নিতে গিয়ে সংঘর্ষে পুলিশ ও সাংবাদিকসহ পাঁচজন আহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে স্বরুপকাঠী উপজেলার কাটাপিটানিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সামনে এ ঘটনায় ১৮ জনকে আটক করা হয়েছে বলে জানান স্বরুপকাঠী থানার ওসি কামরুজ্জামান তালকুদার।

সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী তাদের হোম কোয়ারেন্টিনে নেওয়া হচ্ছিল।

আহতরা হলেন, এশিয়া টিভির সাংবাদিক গোলাম মোস্তফা, স্বরুপকাঠী থানার এসআই তাজেল, এসআই আল মামুন, স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. সুমন ও বলদিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের ব্যক্তিগত গাড়ির চালক মাসুম বিল্লাহ।

স্বরুপকাঠী থানার ওসি কামরুজ্জামান তালকুদার জানান, বৃহস্পতিবার সকালে নারায়নগঞ্জ শহর থেকে একটি ভাড়া করা ট্রলারে করে উপজেলার বলদিয়া ইউনিয়নসহ পাশ্ববর্তী এলাকার কিছু লোক বলদিয়া ইউনিয়নে আসে।

বিষয়টি স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শহিন মিয়া প্রশাসনকে জানান। স্বরুপকাঠী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরকার আবদুল্লা আল মামুন বাবু ওই লোকদেরকে কাটাপিটানিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কায়ারেন্টাইনে রাখার জন্য বলদিয়া ইউপি চেয়ারম্যানকে নির্দেশ দেন বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, “নির্দেশ পেয়ে বিকালে নারায়ণগঞ্জ থেকে আসা ১৮ জনকে ইউনিয়নের কাটাপিটানিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কোয়ারেন্টিনে রাখতে নিয়ে যায় ইউপি চেয়ারম্যান।

“এ সময় এলাকার কয়েকশ মানুষ লাঠিসোটা নিয়ে চেয়ারম্যান ও পুলিশের উপর হামলা চালায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ লাঠিচার্জ করে।”

হামলায় সাংবাদিক গোলাম মোস্তফা, পুলিশ সদস্য তাজেল, আল মামুন, ইউপি সদস্য মো. সুমন ও চেয়ারম্যানের ব্যক্তিগত গাড়ির চালক মাসুম বিল্লাহ আহত হন। ঘটনার ভিডিও ধারণ করায় এশিয়ান টিভির সাংবাদিক গোলাম মোস্তাফার উপর খেপে গিয়ে পিটিয়ে পা ভেঙে দেন হামলাকারীরা বলে জানান তিনি।

“বর্তমান সময় বাইরে থেকে লোক আসায় মানুষের মধ্যে ভীতি কাজ করে বলেই তাদেরকে কোয়ারেন্টিনে রাখার চেষ্টা করছি কিন্তু কিছু না বুঝেই কাটাপিটানিয়া গ্রামের মানুষকে চটিয়ে দিয়ে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে।”

পিরোজপুরের পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান জানান, বাইরে থেকে আসা মানুষদের হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা নিয়ে ঘটনায় দুই জন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে।

“হামলার বিষয়ের চেয়ে বাইর থেকে আসা মানুষগুলোকে নিরাপদ আশ্রয়ে রাখা এবং তাদের প্রয়োজনীয় খাবারের বিষয়টি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে।”

অনলাইন ডেস্ক

Next Post

করোনা পরিস্থিতি; ১১ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব‌্যবস্থা

Fri Apr 10 , 2020
করোনাভাইরাসে সরকারি ছুটির সময়ে বিনা অনুমতিতে কর্মস্থলে অনুপস্থিত থাকায় মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের ১১ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। এই ১১ কর্মকর্তা হলেন, মাদারীপুর জেলার শিবচর উপজেলা প্রকৌশলী মো. ইকবাল হোসেন, উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার শ্যামল কৃষ্ণ মালাকার, উপজেলা সমবায় অফিসার মো. জহিরুল ইসলাম, উপজেলা […]

Chief Editor

Johny Watshon

Lorem ipsum dolor sit amet, consectetur adipiscing elit, sed do eiusmod tempor incididunt ut labore et dolore magna aliqua. Ut enim ad minim veniam, quis nostrud exercitation ullamco laboris nisi ut aliquip ex ea commodo consequat. Duis aute irure dolor in reprehenderit in voluptate velit esse cillum dolore eu fugiat nulla pariatur

Quick Links

error: Content is protected !!